শিক্ষা ও সরকারের উন্নয়ন ভাবনা: ইতি চৌধুরী

72

আইএনবি ডেস্ক: শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। জীবনের মৌলিক চাহিদা অন্ন,বস্ত্র, বাসস্হান, শিক্ষা, চিকিৎসা। এই সব কিছুর মুকুটমনি শিক্ষা।

শিক্ষায় জাতিকে উন্নতির সর্বশিখরে নিয়ে যেতে পারে এই বিশ্বাসকে ধারন করে ঘরে ঘরে শিক্ষার আলো পৌঁছে দিতে বদ্ধপরিকর ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। স্বাধীন বাংলাদেশকে জন্ম দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ছিন্ন বিচ্ছিন্ন এই দেশটাকে আধুনিক সভ‍্যতার আলোকে আলোকিত করতে অসংখ্য কর্মপদক্ষেপ নিয়েছিলেন এবং সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়েছিলেন শিক্ষার মান উন্নয়নে।

সেই লক্ষ্যে প্রাথমিক শিক্ষা অবৈতনিক ও বাধ্যতামূলককরন, ছাব্বিশ হাজার প্রাথমিক বিদ‍্যালয় জাতীয়করন, বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে স্বাধীনভাবে কাজ করতে দেওয়ার জন্য আইন প্রনয়ন বঙ্গবন্ধুর অবিস্মরনীয় কীর্তি। বঙ্গবন্ধুর পথধরে তাঁর সুযোগ‍্য উত্তরাধিকারী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ ও দূরদর্শী নেতৃত্বে বাংলাদেশ একইভাবে এগিয়ে চলেছে। করোনা নামক ভয়ংকর মহামারীতে সারাবিশ্ব আজ স্তম্ভিত এবং বিধ্বস্ত। বাংলাদেশও এই বিষধর কবলের স্বীকার। স্বাভাবিক জীবনের গতিশীলতা না থাকলে রাষ্টিয় কোষাগার দুর্বল হয়ে পরে। এমন একটি ক্রান্তিকালিন সময়ে সর্বস্তরে সজাগ দৃষ্টি রেখে চলেছেন অবিচল গতিতে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রী।

দীর্ঘ এক বৎসর ঘরে বসে অনলাইন ক্লাস করছি অথচ মাস ফুরিয়ে গেলে সরকার ব‍্যাংকে টাকা পাঠিয়ে দেন। এ অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতিতেও তিনি জনজীবনের কথা ভেবে চলেছেন। শিক্ষকদের অর্থনৈতিক ভাবে মানসিক সস্হির লক্ষ্যে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ভাবে পুরুস্কৃত করেছেন। আবারও নতুন ভাবে তিনি ঘোষণা দিলেন শিক্ষকদের পদন্নোতির।

বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় দেশরত্ন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অসীম ধৈর্য ও সাহসিকতার পরিচয় দিয়ে দেশকে সুন্দর ভাবে সুরক্ষা করে এগিয়ে চলেছেন উন্নতির নিশানার দিকে। সত্যিই আজ আমি এই দেশের একজন শিক্ষক হতে পেরে গর্ববোধ করছি সেই সাথে কৃতজ্ঞতা জানাই এই বাংলার বঙ্গবন্ধুর মতো আর এক নক্ষত্র মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি।

সবশেষে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে রবিঠাকুরের জ‍্যোতি কবিতার কিছু কথা আপনাদের সঙ্গে শেয়ার করছি। ” ভেঙ্গেছে দুয়ার এসেছ জ‍্যোতিময়, তোমারী হউক জয়, এসেছ রুদ্র সাজে, দুঃখের পথে তোমার তূর্য বাজে, অরুণ – বহ্নি জালাও চিত্ত মাঝে, মৃত্যুর হোক লয়, তোমারি হউক জয়।”

“জয় বাংলা জয় বঙ্গবন্ধু।”

লেখিকা:
ইতি চৌধুরী
সহকারী অধ্যাপক,
ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি। আল হেরা কলেজ, ঢাকা।

আইএনবি/বিভূঁইয়া