নেইমার ১৪২ বেকার কর্মীকে বেতন দিয়ে যাচ্ছেন

16

আইএনবি ডেস্ক: করোনাভাইরাসে বিপর্যস্ত দেশগুলোর মধ্যে শীর্ষ তিনে রয়েছে ব্রাজিল। এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় প্রাণহানির সংখ্যা ৪ লাখ ছুঁই ছুঁই। সংক্রমণ ও মৃত্যুর পাশাপাশি অর্থনৈতিকভাবেও বড় ধাক্কা লেগেছে ব্রাজিলে। চাকরি হারিয়ে দৈনিক খাদ্য জোগানে হিমশিম খাচ্ছে হাজার হাজার পরিবার।

দেশের এই সংকটময় অবস্থায় নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে এসেছেন বিশ্ব ফুটবলের সফলতম দেশটির তারকা ফুটবলাররা। যাদের অন্যতম প্যারিস সেইন্ট জার্মেইয়ের (পিএসজি) ব্রাজিলিয়ান তারকা নেইমার।

প্রায় এক বছর ধরে কোনো কাজ না করিয়েই নিজের প্রতিষ্ঠানের ১৪২ কর্মীকে পুরো বেতন দিচ্ছেন পিএসজির ব্রাজিলীয় ফরোয়ার্ড।

কোনো মুনাফা বা কাজ ছাড়াই প্রতি মাসে ৯০ হাজার ইউরো খরচ হচ্ছে নেইমারের, যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৯১ লাখ টাকা!

উল্লেখ্য, অসহায় ও দুস্থ শিশুদের দেখভাল করতে প্রতিষ্ঠান খুলেছেন নেইমার। যার নাম— নেইমার জুনিয়র ইনস্টিটিউট। প্রতিষ্ঠানটি ব্রাজিলের প্রেইয়া গ্রান্দে অঞ্চলে প্রায় তিন হাজার দুস্থ শিশুকে দেখভাল করে। কিন্তু করোনার কারণে এক বছরের বেশি সময় ধরে প্রতিষ্ঠানটির সব কার্যক্রম বন্ধ। প্রতিষ্ঠানের সব কর্মীই এখন বেকার।

নিজ প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও কর্মীদের ঠিকই বেতন দিয়ে যাচ্ছেন নেইমার।

এ বিষয়ে ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টারের বাবা নেইমার সিনিয়র স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেন, আমার পরিবার পুরো বিষয়টি সামাল দিচ্ছে। এখানে ১৪২ কর্মীর সবাই তাদের বেতন এবং অন্যান্য সুবিধার সবই পাচ্ছেন। আমাদের সম্পদ থেকে এর ব্যবস্থা করে যাচ্ছি নিয়মিত। যতদিন এই মহামারি চলবে, ততদিনই আমরা প্রতিষ্ঠানের কর্মীদের এভাবেই বেতন দিয়ে যাব। তাদের চিন্তার কোনো কারণ নেই।
তথ্যসূত্র: মার্কা

আইএনবি/বিভূঁইয়া