টিকার তৃতীয় ডোজও নেয়া লাগতে পারে: ফাইজার সিইও

10

আইএনবি ডেস্ক: মার্কিন ফার্মা জায়ান্ট ফাইজারের ভাইরোলজিস্টরা জানিয়েছেন, করোনাভাইরাস থেকে সুরক্ষা পেতে দুই ডোজ টিকা নেয়ার পর ১২ মাসের মধ্যে তৃতীয় ডোজও নেয়া লাগতে পারে।

বিষয়টি নিয়ে ফাইজারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) আলবার্ট বোরলা বলেন, করোনার চরিত্র বদলের ফলে জিনের গঠন বিন্যাসের এত পরিবর্তন হয়েছে যে এই ভাইরাল স্ট্রেন থেকে রক্ষা পেতে ভ্যাকসিনের তৃতীয় ডোজ প্রয়োজন হবে।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনবিসিতে সম্প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেছেন।

করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচতে হলে টিকা নেয়ার পর থেকে প্রতি বছরে একটি করে বুস্টার ডোজও নিতে হতে পারে বলে জানান বোরলা।

ফাইজারের সিইও বলেন, নতুন নতুন ধরন যেভাবে গোটা বিশ্বে সংক্রমণ ঘটাচ্ছে, তা রুখতে দ্বিতীয় ডোজ নেয়ার ৬ থেকে ১২ মাসের মধ্যেই একটি বুস্টার ডোজ নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে। তৃতীয় ডোজের পর থেকে প্রতি বছর আবার একটি করে ডোজও নিতে হতে পারে। তবে, টিকার বুস্টার ডোজ নিয়ে আরও গবেষণা প্রয়োজন বলে মত দেন তিনি।

প্রাথমিক গবেষণায় দেখা গেছে, ফাইজারের টিকাসহ এখন পর্যন্ত কার্যকর হিসেবে প্রমাণিত। অন্যান্য টিকাও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে ছয় মাস পর্যন্ত সুরক্ষা দিতে সক্ষম। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নতুন নতুন ধরনের কারণে নিয়মিত বুস্টার প্রয়োজন হতে পারে।

প্রতি বছর টিকার একটি করে ডোজ নেয়ার প্রয়োজন রয়েছে কি না এখনও সেটি নিশ্চিত নয় জানিয়ে ফাইজার বলেছে, টিকা নিয়ে গবেষণা চলছে এবং সবটাই নির্ভর করছে মহামারি এই ভাইরাসের অতিসংক্রামক নতুন নতুন ধরনগুলোর ওপর।

আইএনবি/বিভূঁইয়া