জ্বালানি তেলের দাম বিশ্ববাজারে ‘হুহু করে’ কমছে

3

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক: বিশ্ববাজের ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের কারণে  জ্বালানি তেলের দাম ছিল ঊর্ধমুখী। ব্যারেল প্রতি তেলের দাম উঠে যায় ১৩৯ ডলারে। তবে ক্রমাগত সেই দাম কমতে শুরু করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় গত বৃহস্পতিবার জ্বালানি তেলের দাম ছিল গত ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনে যুদ্ধ শুরুর পর সর্বনিম্ন পর্যায়ে। আজ শনিবার (৬ আগস্ট) আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দাম ৯০ ডলারেরও নিচে পৌঁছেছে।

রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছরের শেষের দিকে ব্যবসায়ীরা বিশ্বজুড়ে মন্দার আশঙ্কা করছেন। এতে জ্বালানির চাহিদা কমবে এমন শঙ্কার কারণে কমছে তেলের দাম।

অয়েল প্রাইস ডটকম জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বাজারে দুই ধরনের অপরিশোধিত তেলই এখন ১০০ ডলারের কমে বিক্রি হচ্ছে। এই রিপোর্ট লেখার সময় ওয়েস্ট টেক্সাস ইন্টারমিডিয়েট অপরিশোধিত তেল ব্যারেল প্রতি ৮৮ ডলার ৪৩ সেন্টে বিক্রি হয়েছে। অপরদিকে ব্রেন্ট অপরিশোধিত তেল বিক্রি হয়েছে ৯৩ ডলার ৯৫ সেন্টে।

অন্যদিকে গত বৃহস্পতিবার বেঞ্চমার্ক ব্রেন্ড ক্রুড প্রতি ব্যারেল ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ বা ২ দশমিক ৬৬ ডলার কমে ৯৪ দশমিক ১২ ডলারে বিক্রি হয়েছে, যা গত ১৮ ফেব্রুয়ারির পর সর্বনিম্ন দর।

ব্লুমবার্গের বিভিন্ন রিপোর্ট অনুযায়ী, গত এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের পর এবারই সবথেকে দ্রুত তেলের দাম কমছে। রয়টার্স বলছে, যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপজুড়ে চলছে মন্দাবস্থা।

উদীয়নমান অর্থনীতির দেশগুলো তাদের ঋণ পরিশোধ নিয়ে বিপাকে। অন্যদিকে চীনে শূন্য কোভিড নীতির কারণে অর্থনীতি কার্যক্রম কমেছে। দেশটি বিশ্বে জ্বালানি তেলের সবচেয়ে বড় ক্রেতা ।

এসব কারণে চাহিদা নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দেওয়ায় তেলের দাম কমছে।

আইএনবি/বিভূঁইয়া