আপিল বিভাগে বিচারকাজ চলবে সপ্তাহের তিন দিন

8

আইএনবি ডেস্ক: করোনাভাইরাসজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে বিচার কার্যক্রম সীমিত আকারে পরিচালনার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ঐ সিদ্ধান্ত মোতাবেক সপ্তাহের তিন দিন রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের এক নম্বর কোর্টে বিচারকাজ অনুষ্ঠিত হবে।

তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে শুধু ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এই বিচারকাজ চলবে। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন ও আপিল বিভাগের বিচারপতিদের নিয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে গতকাল রবিবার এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এছাড়া সোম ও বুধবার আপিল বিভাগের চেম্বার আদালতের বিচারকাজ অনুষ্ঠিত হবে। এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নেতারা।

সমিতির সভাপতি ও অ্যাটর্নি জেনারেল অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, সাংবিধানিক কোর্ট খোলা রাখার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে আইনজীবীরা মামলার শুনানিতে এখন অংশ নেবে।

রবিবার এ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তিতে সুপ্রিম কোর্ট থেকে বলা হয়েছে, করোনার উদ্ভূত পরিস্থিতিতে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সপ্তাহের তিন দিন আপিল বিভাগের এক নম্বর কোর্টে বিচারকাজ পরিচালিত হবে।

হাইকোর্টের চার বেঞ্চে বিচারকাজ

এদিকে, হাইকোর্টের চারটি বেঞ্চে বিচারকাজ চলছে। এর মধ্যে তিনটি দ্বৈত ও একটি একক বেঞ্চ রয়েছে। দ্বৈত বেঞ্চগুলোতে রিট, ফৌজদারি ও দেওয়ানি মোশন মামলার শুনানি চলে।

প্রসঙ্গত গত বছরের মার্চে করোনা ভাইরাসজনিত উদ্ভূত পরিস্থিতিতে দেশের সাংবিধানিক আদালতের বিচার কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়। বিচারপতি, আইনজীবী ও বিচার প্রার্থী জনগণকে সুরক্ষা দিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। পরবর্তীকালে অধ্যাদেশ জারির মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে ভার্চুয়াল উপস্থিতির মাধ্যমে চালু করা হয় উচ্চ আদালতের বিচার কার্যক্রম। পরে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে চালু হয় আপিল বিভাগের বিচার কার্যক্রম। সময়ের ধারাবাহিকতায় ভার্চুয়াল পদ্ধিতর বিচারকাজ এখন সবার কাছে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে বলে জানান আইনজীবীরা।
ইত্তেফাক

আইএনবি/বিভূঁইয়া