১১ বছরের শিশুকে ধর্ষণের পর খুনের চেষ্টা

3

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:  ভারতের উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুরে ধর্ষণের শিকার চতুর্থ শ্রেনীর শিশু। ধর্ষনের স্বীকার ১১ বছরের শিশুটিকে ভর্তি করা হয়েছে স্থানীয় হাসপাতালে। সেখানে সে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে। হাথরস, বদায়ূঁ-র পরও একাধিকবার নারী নিগ্রহে খবরের শিরোনামে এসেছে যোগী রাজ্য। অথচ কোনও ভাবেই নারী নিগ্রহে লাগাম টানতে পারছে না প্রশাসন।

নারী নির্যাতনের পরিসংখ্যান দিলে দেখা যাবে, তালিকায় বেশ উপরের দিকেই রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। ২০১৫ সাল থেকে গোটা দেশের নিরিখে উত্তর প্রদেশে ধর্ষণের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৬০ শতাংশ। সরকারি হিসাবেই নারী নির্যাতনের এই চেহারা যথেষ্ট উদ্বেগের।

ঘটনার পর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও নির্যাতিতার স্বাস্থ্য ক্রমে ভেঙে পড়ছে। পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে বলে প্রশাসন সূত্রে জানাযায়। নির্যাতিতার পরিবারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ধর্ষণের পর ওই ৪ বছরের শিশুটিকে হত্যা করতে চেষ্টা করে আক্রমণকারীরা। শেষে শিশুটি মারা গিয়েছে ভেবে ওই স্থান থেকে চলে যায় ধর্ষকরা।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় শাহজানপুরের মেডিক্যাল কলেজে ওই নির্যাতিতাকে ভর্তি করা হয়। প্রথমে স্থানীয় স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়ার পরেও অবস্থার অবনতি হওয়াতেই সরকারি হাসপাতালে নিযে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

স্থানীয় বিধায়ক বলেছেন, ‘‘এটি বড় অপরাধমূলক ঘটনা। সেই কারণে, জেলাশাসক থেকে মুখ্যমন্ত্রীর সচিবালয় পর্যন্ত এই খবর দেওয়া হয়েছে। যাতে দ্রুত ঘটনার তদন্ত হয় ও দোষীদের শাস্তি হয়।’’ আনন্দবাজার

আইএনবি / বিভূঁইয়া