হজের খুতবায় করোনা মুক্তি ও বিশ্ব শান্তি কামনা

7

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: বৃহস্পতিবার (৯ জিলহজ) স্থানীয় সময় দুপুর বারোটা ২৮ মিনিটে সালাম দিয়ে হজের খুতবা শুরু করেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সোলায়মান আল মানিয়া।

সৌদি আরবের আরাফাতের ময়দানে অবস্থিত মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবায় বৈশ্বিক মহামারি থেকে মুক্তি এবং আল্লাহর রহমত কামনা করা হয়েছে।

খুতবার শুরুতে আল্লাহতায়ালার প্রশংসা ও হজরত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের ওপর দরুদ পাঠ করেন।

খুতবায় তিনি বৈশ্বিক মহামারি থেকে মুক্তি, গোনাহ মাফ, আল্লাহর রহমত কামনাসহ সম-সাময়িক প্রসঙ্গ নিয়ে বিশ্ববাসীর প্রতি নানা নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে চলতি বছর খুব অল্প সংখ্যক মানুষ হজপালনের সুযোগ পেয়েছেন। তন্মধ্যে সৌদি আরবের অধিবাসী ও সৌদি আরবে বসবাসরত বিদেশি নাগরিকদের মধ্যে ১০ হজার জন হজ পালনের সুযোগ পেয়েছেন। হজ পালনের শর্ত হিসেবে তাদেরকে সুস্থ ও হজের আগে-পরে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকার অঙ্গীকার করতে হয়েছে।

আরব নিউজের সূত্রে জানা গেছে, এবারের হজে সৌদি আরবের নাগরিক ছাড়া আরও ১৬০ দেশের প্রায় ৭ হাজার মানুষ হজে অংশগ্রহণ করেছেন। তন্মধ্যে বাংলাদেশের নাগরিক রয়েছেন ৫ জন।

এ বছর পবিত্র হজের আরবি খুতবা অন্যান্য ভাষার পাশাপাশি বাংলা ভাষায়ও অনুবাদ করে সম্প্রচার করা হচ্ছে। দুইটি সম্প্রচার মাধ্যমে হজের খুতবা ১০টি ভাষায় অনুবাদ করে প্রচার করা হচ্ছে।

বাংলা ছাড়াও বাকি নয়টি ভাষা হলো- ইংরেজি, মালয়, উর্দু, ফার্সি, ফ্রেঞ্চ, মান্দারিন, তুর্কি, রুশ ও হাবশি। ২০১৯ সালের হজে ৫ ভাষায় হজের খুতবার অনুবাদ প্রচারিত হয়েছিল।

আইএনবি/বি.ভূঁইয়া