মালয়েশিয়ার দাবি ৬০ নাবিকসহ ৬ চীনা জাহাজ আটক করেছে

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:মালয়েশিয়ান সামুদ্রিক কর্তৃপক্ষ শনিবার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয় দেশটির সমুদ্রসীমায় অবৈধভাবে প্রবেশের দায়ে ৬টি চীনা জাহাজ ও ৬০ নাবিককে আটক আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছে।

বিশ্ব বাণিজ্যের অন্যতম সামুদ্রিক পথ দক্ষিণ চীন সাগরে যুক্তরাষ্ট্রের পাশাপাশি প্রতিবেশি অন্যান্য দেশের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলছে চীনের। দক্ষিণ চীন সাগরের সম্পদের বেশিরভাগের মালিকানা দাবি করে চীন। এ নিয়ে প্রায়ই সেখানে উত্তেজনাকর পরিস্থিতি তৈরি হয়।

মালয়েশিয়া বলছে, ২০১৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত চীনের উপকূলরক্ষী এবং নৌবাহিনীর সদস্যরা অন্তত ৮৯ বার মালয়েশিয়ার সমুদ্রসীমায় অবৈধ অনুপ্রবেশ করেছে।

মালয়েশিয়ার মেরিটাইম এনফোর্সমেন্ট এজেন্সি (এমএমইএ) বলছে, শুক্রবার দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ জহুরের উপকূলীয় এলাকায় অভিযান চালিয়ে চীনের মাছ ধরার জাহাজ এবং নাবিকদের আটক করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে এমএমইএর আঞ্চলিক পরিচালক মোহাম্মদ জুলফাদলি নয়ন বলেছেন, তদন্তে আটককৃত জাহাজগুলো চীনের কিনহুয়াংদো শহরে নিবন্ধিত হিসেবে পাওয়া গেছে। জাহাজগুলোতে ছয়জন ক্যাপ্টেন এবং ৫৪ নাবিক ছিলেন। যাদের প্রত্যেকের বয়স ৩১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে। আটককৃতদের প্রত্যেকেই চীনা নাগরিক।

এমএমইএ বলছে, আটকের সময় জাহাজগুলোতে কোনো মালামাল পাওয়া যায়নি। ফলে এসব জাহাজ মৌরতানিয়া যাচ্ছিল বলে ধারণা করা হয়েছিল। তবে কিছু ত্রুটির কারণে জাহাজগুলোকে থামতে হয়েছিল। পরে সেগুলোকে আটক করা হয়।

চলতি বছরের শুরুর দিকে দক্ষিণ চীন সাগরে মালয়েশিয়ার একচেটিয়া অর্থনৈতিক অঞ্চলে চীনের একটি গবেষনা জাহাজ এক মাসেরও বেশি সময় ধরে জরিপ পরিচালনা করে।
সূত্র : রয়টার্স।

আইএনবি/বি.ভূঁইয়া