Monday, December 16, 2019
Monday, December 16, 2019

প্রযুক্তি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বসবেন ইডেনে কমান্ডো ঘেরা বক্সে

Friday, November 22, 2019

আইএনবি নিউজ: বাংলাদেশ ও ভারত কূটনীতিতে মিত্র যদিও মাঠে প্রতিদ্বন্দ্বী। আজ শুক্রবার কলকাতা গেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইডেন গার্ডেনে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ দেখতে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে গোলাপি বলের দিবা-রাত্রির ঐতিহাসিক এ টেস্ট ম্যাচের প্রথম দিন মাঠে উপস্থিত থাকবেন তিনি।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিষয়টি মাথায় রেখে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যূহ পৃথক একটি ঘেরাটোপ বা বক্স তৈরি হচ্ছে। সেটি ঘিরে রাখবেন কমান্ডোরা। ওই বক্সে হাসিনা এবং তার ঘনিষ্ঠেরা থাকবেন। বাংলাদেশের নিরাপত্তা দল ইতিমধ্যেই ইডেনের ওই বিশেষ সুরক্ষা ব্যবস্থা খতিয়ে দেখেছে।

দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজস্ব একটি নিরাপত্তা দল তার সঙ্গেই আসবে। তবে ভারতে অবস্থানকালে তার নিরাপত্তার মূল দায়িত্ব থাকবে কলকাতা পুলিশের হাতেই। সাম্প্রতিককালে আর কোনো বিদেশি রাষ্ট্রপ্রধানের সফরে এমন নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করা হয়নি।

আজ শুক্রবার ইডেনে প্রথম দিন-রাতের টেস্ট খেলতে নামছে ভারত ও বাংলাদেশ। বিসিসিআই-এর সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলীর আমন্ত্রণে সেই ম্যাচের উদ্বোধনে আসছেন শেখ হাসিনা।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বহনকারী বিমান আজ শুক্রবার সকালেই কলকাতা বিমানবন্দরে পৌঁছেছেন। সেখান থেকে তাকে নিউ টাউন, ইএম বাইপাস, পরমা উড়ালপুল, এজেসি বোস উড়ালপুল হয়ে আলিপুরের একটি পাঁচতারা হোটেলে নিয়ে যাওয়া হয়। হোটেল থেকে ইডেনে পৌঁছে ম্যাচের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ইডেনে বেশ কিছুক্ষণ কাটিয়ে তিনি ফিরবেন হোটেলে। কয়েকটি বৈঠক সেরে সন্ধ্যায় আবার যোগ দেবেন ইডেনের নৈশভোজে। রাতেই কলকাতা বিমানবন্দর থেকে ঢাকার উদ্দেশে পাড়ি দেবে তার বিমান।

দেশটি পুলিশি সূত্রে জানা গেছে, সিপি-র নির্দেশ অনুযায়ী পুলিশ বিমানবন্দর থেকে আলিপুরের পাঁচতারা হোটেল এবং সেখান থেকে ইডেনের যাত্রাপথ নিরাপত্তায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। শেখ হাসিনার যাতায়াতের পথে থাকা উড়ালপুলের তলাতেও কড়া নজরদারি ও নিরাপত্তা থাকবে। হোটেলে থাকবেন সাদা পোশাকের পুলিশকর্মী ও কমান্ডোরা। আনন্দবাজার

আইএনবি/বিভূঁইয়া