প্রধানমন্ত্রীর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসে যুবলীগের দোয়া ও খাবার বিতরণ

57

 

নিজস্ব প্রতিবেদক

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৩৯তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে মিলাদ, বিশেষ দোয়া ও অসহায় মানুষের মধ্যে খাদ্য সামগ্রি বিতরণ করেছে বাংলাদেশ যুবলীগ।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ডের পর প্রায় ছয় বছর নির্বাসিত জীবন কাটিয়ে ১৯৮১ সালের ১৭ মে দেশে ফেরেন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা।

দিবসটি উপলক্ষে রোববার (১৭ মে) যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ও মিরপুর-১ শাহ আলী মাজার প্রাঙ্গনে সংগঠনের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল এর নির্দেশে ঢাকা পৃথক দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।  দোয়া মাহফিল শেষে  তবরাক বিতরণ করা হয়।

এ সময় যুবলীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর যুবলীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, যুবলীগ কেন্দ্রীয় নেতা মনিরুল ইসলাম হাওলাদার, দক্ষিণ শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক গাজী সারোয়ার হোসেন বাবু, প্রচার সম্পাদক আরমান হক বাবু, মিরপুর শাহ আলী মাজারে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সহ সভাপতি জলিলুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক খায়রুল উদ্দিন আহম্মেদ, দপ্তর সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, কেন্দ্র্রীয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মুক্তার হোসেন চৌধুরী কামাল, ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য এইচ এম পাটওয়ারী বাবু, গোলাম মোর্তুজা হিমেল সহ স্থানীয় যুবলীগ নেতৃবৃন্দ।

জানতে চাইলে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, ৭৫ সালে জাতির পিতা স্বপরিবারে হত্যার পর মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ভুলণ্ঠিত  হয়েছিল। সামরিক শাসনের নামে মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার হরণ করা হয়েছিল। সেই অন্ধকারে আলোর দিশারী হয়ে এসেছিলেন বঙ্গ কন্যা শেখ হাসিনার। সেদিন জীবন ঝুঁকি নিয়ে তিনি ফিরেছিলেন বলেই আজকের উন্নত বাংলাদেশ আমরা পেয়েছি।তাই আজকের দিনে রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু ও সুস্বাস্থ্য কামনা করে যুবলীগের উদ্যোগে মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে।