পূর্বধলায় দাদার চিকিৎসা করাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার তরুণী

0

নেত্রকোনা প্রতিনিধি: নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলায় দাদার চিকিৎসা করাতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক তরুণী। শনিবার দুপুরে তাকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়।

নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোরশেদা খাতুন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের শিকার তরুণী দাদার চিকিৎসার জন্য পূর্বধলা হাসপাতালে অবস্থান করছিলেন। এ সময় তার পূর্বপরিচিত পূর্বধলা উপজেলার নোয়াপাড়া গ্রামের লালন শুক্রবার রাত ৮টার দিকে লালন ফল কিনে দেবে বলে ওই তরুণীকে ফোন দিয়ে হাসপাতালে সামনে আসতে বলেন। তরুণী সেখানে গিয়ে দাদার চিকিৎসার জন্য টাকার প্রয়োজনের কথা জানায়।

পরে লালন তরুণীকে টাকা আনতে তার বন্ধু উপজেলার দীঘজান গ্রামে নুর নবীর সঙ্গে বন্ধুর বাসায় পাঠায়। কিছুক্ষণ পর লালনও তার বন্ধুর বাসায় আসে। প্রথমে লালন ও পরে নুরনবী তরুণীকে ধর্ষণ করে। তরুণী রাতেই বিষয়টি থানায় এসে পুলিশকে জানায়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোরশেদা খাতুন বলেন, ধর্ষক দুজনকে ওই রাতেই আটক করা হয়েছে। শনিবার তরুণীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তরুণীর অভিযোগ মামলায় রূপান্তরিত হলে আসামি দুজনকে আদালতে পাঠানো হবে।

আইএনবি/বি.ভূঁইয়া