নামাজ-ইবাদতে মশগুল এ্যানি খান

1

বিনোদন ডেস্ক: এ্যানি খান ছোট পর্দার ব্যস্ততম তারকা। শিশুশিল্পী হিসেবে মিডিয়াতে কাজ শুরু করেছিলেন তিনি। সেই থেকে তার পথচলা শুরু।

তবে প্রায় ২৩ বছর ধরে মিডিয়ার নানা মাধ্যমে কাজ করে পরিচিতি পাওয়া এ অভিনেত্রী এবার ভিন্ন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এখন থেকে উল্টো পথে হাঁটতে চান তিনি। অর্থাৎ আর মিডিয়াতে নয়, ছেড়ে দিতে চান অভিনয়!

এই প্রসঙ্গে এ্যানি খান বলেন, ‘ছোট থেকেই টিভিতে বিভিন্ন অনুষ্ঠান করতাম। ২০১৫ সাল পর্যন্ত অভিনয়ে অনিয়মিত ছিলাম।

তারপর থেকে এ পর্যন্ত টানা নাটকে কাজ করে মানুষের অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। তবে এবার একেবারেই মিডিয়ার কাজ থেকে নিজেকে সরিয়ে নিচ্ছি। সার্বক্ষণিক নামাজ ইবাদতে মগ্ন আছি।

মার্চের ১৯ তারিখ শেষবার শুটিং করেছি। তারপর করোনায় সবকিছু বন্ধ। পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ছি, নফল নামাজ পড়ছি, কোরআন হাদিস পড়ছি। অনেক কিছু থেকে পিছিয়ে ছিলাম শিখছি।

এ্যানি খান বলেন, প্রতিদিন মৃত্যুর খবর যেভাবে শুনছি, এত মৃত্যুর খবর আগে শুনিনি।

এরমধ্যে আমার বাবাকে হারিয়েছি, আরও অনেক কাছের মানুষ চলে যাচ্ছে। আমি একজন মুসলিম। মুসলিম হিসেবে ধর্মীয় বিষয়গুলো যতোই জানার চেষ্টা করছি ততই ধর্ম বিষয়ক জ্ঞান বাড়ছে।

এতে করে অনেক কিছুতে বিধিনিষেধ চলে আসছে। দু মিনিট পরে আমি বাঁচবো কিনা জানি না। মৃত্যুর পরে অনন্ত কালের জন্য আমি কি সঞ্চয় করলাম? এ সবকিছু চিন্তাভাবনা মিলিয়ে আমি আর মিডিয়ার কাজে ফিরতে চাইছি না। এজন্য কেউ আমাকে ভণ্ড বলতে পারেন, খারাপ বলতে পারেন। তাতে আমার কিছু যায় আসে না।

আইএনবি/বি.ভূঁইয়া