নরসিংদীতে পিঠা খেয়ে গৃহবধূর মৃত্যু

2

নরসিংদী প্রতিনিধিঃ বাড়িতে তালের তৈরী পিঠা খাওয়ার পর রানী আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে।

নরসিংদীর মাধবদীতে মঙ্গলবার রাতে আমদিয়া ইউনিয়নের চাঁনগাও এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
অসুস্থ হয়ে একই পরিবারের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে, আতাউর রহমানের স্ত্রী রিনা বেগম (৪৫), মেয়ে সুবর্ণা আক্তার (১২), নাতনী মুন্নী আক্তার (১১) তিন্নী আক্তার (৮), লিজা আক্তার (৫) ও আবদুল্লাহ (৩)।

মাধবদী থানা পুলিশ জানায়, সোমবার শ্বশুরবাড়ি থেকে বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন রানী আক্তার। এ উপলক্ষে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তালের পিঠা তৈরি করেন মা রিনা বেগম। রাতে রিনা বেগম মেয়ে ও ছেলের ঘরের নাতি নাতনীদের নিয়ে ওই পিঠা খান। পিঠা খাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরে বাড়ির লোকজন আহতদের রাতেই নরসিংদী সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাতে রানী আক্তার মারা যান। অবস্থা গুরুতর হওয়ায় বাকিদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মাধবদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত ) সাফায়েত হোসেন পলাশ বলেন, বাড়িতে তৈরী তালের পিঠা খেয়েই সবাই অসুস্থ হয়েছেন। নিহতের লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের লোকজনের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। পিঠায় কিভাবে বিষক্রিয়া হয়েছে সেটা পরীক্ষা নিরীক্ষার পর নিশ্চিত হয়ে বলা যাবে।

আইএনবি/বিভূঁইয়া