তিন ইসলামি নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

4

আইএনবি ডেস্ক: ভাস্কর্যের বিরোধিতার নামে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের আমীর মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী, সংগঠনটির যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক এবং ইসলামী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ ফয়জুল করিমের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের মামলার আবেদন করা হয়েছে।

ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে সোমবার (৭ ডিসেম্বর) দু’টি মামলার আবেদন করা হয়।

মাওলানা জুনায়েদ বাবুনগরী এবং সৈয়দ ফয়জুল করিমের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেন মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল।

অন্যদিকে শুধু মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন করেছেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট মশিউর মালেক। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নিয়ে বক্তব্য দেয়ায় তাদের বিরুদ্ধে এ মামলা করা হয়েছে।

ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সত্যব্রত শিকদার বাদীর জবানবন্দি নেওয়ার পর মামলা দু’টি আদেশের জন্য রেখেছেন।

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনে হেফাজতে ইসলামসহ কয়েকটি ধর্মভিত্তিক দলের বিরোধিতার প্রতিবাদে শনিবার ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের কেন্দ্রীয় সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুলের মামলার আর্জিতে দণ্ডবিধির ১২০ (খ) (১)/১২৪ (ক)/ ৫০৫ (ক) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, ইসলামকে ‘ঢাল হিসেবে ব্যবহার’ করে আসামিরা ধর্মের ‘আজগুবি’ ব্যাখ্যা দিয়ে ‘বিদ্বেষপূর্ণ, কাল্পনিক, উত্তেজনাকর ও উসকানিমূলক’ বক্তব্য দিচ্ছেন। তারা বাঙালি মুসলমান সমাজের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও সংবিধান সম্পর্কে ‘বিদ্বেষ সৃষ্টি করে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে রাষ্ট্রদ্রোহমূলক’ কর্মকাণ্ডে লিপ্ত রয়েছেন।

অ্যাডভোকেট মশিউর মালেকের মামলার আর্জিতে দণ্ডবিধির ১২০ (খ)/১৫৩/১২৪ (ক)/ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, মামুনুল হক এক আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ‘ভেঙে ফেলার হুমকি দেন’, যা দেশ ও সরকারের স্থিতিশীলতাকে ‘হুমকির মুখে’ ফেলে দিয়েছে।
আমার সংবাদ

আইএনবি/বিভূঁইয়া