কোরআন শরীফ পূজামণ্ডপে রাখা ইকবালের বিচার চাইলেন মা

4

আইএনবি ডেস্ক: শারদীয় দুর্গাপূজার মহাঅষ্টমীর দিন গত বুধবার ভোরে কুমিল্লা শহরের নানুয়াদীঘির উত্তর পাড়ে দর্পণ সংঘের উদ্যোগে আয়োজিত অস্থায়ী পূজামণ্ডপে পবিত্র কোরআন শরীফ পাওয়া যায়।পূজামণ্ডপে হনুমানের পায়ের উপর কোরআন রাখার  সিসিটিভির ফুটেজে সন্দেহভাজন ব্যক্তিটি ইকবাল হোসেন তা নিশ্চিত করেছেন তার ভাই রায়হান। তিনি দাবি করছেন, তার ভাই ‘পাগল’।  ইকবালের মা বিবি আমেনাও নিজের ছেলেকে নিয়ে বিব্রত। পূজামণ্ডপে কোরআন শরীফ রাখার কারণে ছেলের বিচার চাইলেন মা।

ইকবাল মানসিকভাবে অসুস্থ দাবি করে তার মা বিবি আমেনা বলেন, ‘বখাটেপনার কারণে গণপিটুনির শিকার হয়েছিল ইকবাল। এরপর থেকে তার আচরণে সবাই অতিষ্ঠ। ইকবালকে পেলে আপনারা বিচার করবেন। এই সন্তানের জন্য আমার পরিবারটা শেষ হয়ে গেছে।’

ইকবালের ছোটভাই রায়হান বলেন, ‘সিসিটিভির ফুটেজের এই মানুষ আমার ভাই। সে পাগল। ঘটনার এক সপ্তাহ আগে খেলার মাঠে তাকে নিয়ে ছেলেপুলেরা দুষ্টামি করায় সে সবাইকে জুতা দিয়ে মেরেছিল। তবে নেশা করে কিনা সেটা আমি জানি না। সে এমন মানুষ মাকে পাথর নিয়ে মারতে চায় সে বুঝে শুনে এমন কাজ করার কথা না। ওকে চা-পানি, নাস্তা করালে যা বলবে তাই করবে।’

কুমিল্লা নগরীর সুজানগর এলাকায় ভাড়া বাসায় বসবাস করে ইকবালের পরিবার। ঘটনার পর থেকে ইকবালের বাবা পুলিশকে সহায়তা করছেন বলেও জানান ইকবালের মা বিবি আমেনা ও ভাই রায়হান।

আইএনবি / বিভূঁইয়া