কাপাসিয়ার বানার নদে ধসে পড়েছে ৬ বাড়ি

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের কাপাসিয়ায় ঈদগাঁ ময়দান সংলগ্ন এলাকায় বানার নদে ধসে পড়েছে ৬টি বাড়ি। এ ছাড়া ধসে পড়ার আশঙ্কায় আতঙ্কে দিন কাটছে আরও ২০ পরিবার। আতঙ্কিত হয়ে অনেকেই আশ্রয় নিয়েছেন আশপাশের প্রতিবেশীর বাড়িতে।

ঈদুল আজহার আগের দিন গত রবিবার থেকে বাড়িগুলো ধসে পড়তে থাকে। শনিবার পর্যন্ত সেখানে ধসে গেছে ৬টি বাড়ি। বাড়িঘর হারিয়ে ওই পরিবারগুলোর ১৮ সদস্যের মানবেতর দিন কাটছে।

স্থানীয়রা জানান, বানার নদের ফকির মজনু শাহ সেতুর ২০০ মিটার পশ্চিমে কাপাসিয়া-শ্রীপুর সড়কের পাশে একটি মাদ্রাসা ও মসজিদ। এর পর নদের পাড় লাগোয়া প্রায় ৩০০ মানুষের বসতি। সেখানে বাড়ি- ঘরের সংখ্যা শতাধিক। এসব বাড়ি-ঘরের মধ্যে বাবুল মিয়া, মো. রফিকুল ইসলাম, হেনা বেগম, কিরণ মিয়া, লিটন মিয়া ও সাবানা বেগমের বাড়ি ধসে নদের পাড়ে পড়ে গেছে। ঘরের ভেতর ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে তাদের নিত্যব্যবহার্য জিনিসপত্র। একটি টিউবওয়েল দড়ি দিয়ে বেঁধে কোনোমতে রক্ষা করে রেখেছেন বাসিন্দারা। যেসব ঘর টিকে আছে, সেগুলোর মেঝেতেও দেখা দিয়েছে বড় বড় ফাটল।

সেখানকার ক্ষতিগ্রস্ত বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রবিবার মধ্যরাতে হঠাৎ ধস শুরু হয়। তারা সবাই ঘুমন্ত অবস্থায় ছিলেন। ভয়ে চিৎকার করে উঠে দেখেন ধসে পড়ছে ঘরবাড়ি।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, অজ্ঞাত ব্যক্তিরা রাতের আঁধারে তাদের বসতি লাগোয়া এলাকায় বালু উত্তোলন করায় এমন পরিস্থিতিতে পড়েছেন তারা।

কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবুল কালাম লুৎফর রহমান বলেন, স্থানীয় বসতি টিকিয়ে রাখতে এখানে বাঁধ দেওয়া জরুরি হয়ে পড়েছে। আমরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাথে যোগাযোগ করেছি, তারা দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেবেন বলে জানিয়েছে।

আইএনবি/বিভূঁইয়া