‘আমার যাওয়ার মতো বাড়ি নেই’, বিক্ষোভকারীদের শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট

2

আর্ন্তজাতিক ডেস্ক:শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট  রনিল বিক্রমাসিংহে বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, আমি আপনাদের কাছে অনুরোধ করছি যে আর বিক্ষোভ শুরু করবেন না। আমার যাওয়ার মতো কোনো বাড়ি নেই।

আমায় বাড়ি যেতে বলা শুধুই সময়ের অপচয়। বরং বিক্ষোভকারীদের উচিত আমার পুড়িয়ে দেওয়া বাড়ি ফের তৈরি করে দেওয়া।

রোববার ( ৩১ জুলাই) ক্যান্ডিতে একটি জনসভায় যোগ দিয়ে তিনি এ সব কথা বলেন।

শ্রীলঙ্কার সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে দেশ ছাড়ার পর সেই পদে নির্বাচিত হন রনিল বিক্রমাসিংহে। আন্দোলনে বিক্ষোভকারীরা তার বাড়িও পুড়িয়ে দিয়েছে।

শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট বলেন, লাগাতার বিক্ষোভের কারণে দেশে যে অস্থির অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে, তার জন্যই আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) সঙ্গে চুক্তি পিছিয়ে যাচ্ছে। দেশকে আর্থিক সঙ্কট থেকে উদ্ধার করতে এই সাহায্যের অত্যন্ত প্রয়োজন। দেশকে সঙ্কটমুক্ত করতে সমস্ত রাজনৈতিক দলকে একজোট হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষের হয়েও জনসভায় কথা বলে রনিল।  তিনি বলেন, আর্থিক সঙ্কটের জন্য়  সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষেকে দোষ দিয়ে কোনো লাভ নেই। বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে চরম জ্বালানি ও খাদ্যসঙ্কটের মধ্যেও বিক্ষোভকারীরা দেশজুড়ে যে তাণ্ডব চলেছে, তার কারণেই আইএমএফের সঙ্গে চুক্তি পিছিয়ে গিয়েছে।

এদিকে, দেশবাসীকে কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে ফেলে রেখে শ্রীলঙ্কা ছেড়ে পালিয়েছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে। বর্তমানে তিনি সিঙ্গাপুরে রয়েছেন। এই পরিস্থিতিতেই জল্পনা শুরু হয়েছে, আবার শ্রীলঙ্কাতেই ফিরতে পারেন গোতাবায়া। এই প্রসঙ্গে শ্রীলঙ্কার বর্তমান প্রেসিডেন্ট বলেন, গোতাবায়ার জন্য এখনই দেশে ফেরা ঠিক হবে না। এখনও দেশে উত্তেজনা রয়েছে, তাই এখন তাঁর ফিরে আসার সঠিক সময় নয়।

সূত্র:  এনডিটিভি

 

আইএনবি/বিভূঁইয়া